Last update
Loading...

ভরিতে ১২শ’ টাকা কমল স্বর্ণের দাম

ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমেছে স্বর্ণের দাম। এর ফলে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম পড়বে ৪৫ হাজার ৮৯০ টাকা। আজ থেকে এ দাম কার্যকর হবে। রোববার বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির (বাজুস) সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছিল। এদিকে আন্তর্জাতিক বাজারে রোববার প্রতি গ্রাম ২২ ক্যারেট স্বর্ণের দাম ছিল ৩৮ দশমিক ৪৯ ডলার। এ হিসাবে প্রতি ভরির দাম পড়ে ৩৫ হাজার ৪৫৮ টাকা। ফলে দাম কমার পরও বিশ্ববাজারের সঙ্গে ভরিতে পার্থক্য ১০ হাজার ৪৩১ টাকা। বাজুস জানায়, তারা আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে দেশে স্বর্ণের দাম নির্ধারণ করে। এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি ভরিতে ১১শ’ টাকা বাড়ানো হয়েছিল। নতুন মূল্য অনুযায়ী, সবচেয়ে ভালোমানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৫ হাজার ৮৯০ টাকা। রোববার এর দাম ছিল ৪৭ হাজার ৬৪ টাকা। এ হিসাবে ভরিতে কমেছে ১ হাজার ১৬৬ টাকা। এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি ৪৪ হাজার ৯৬৪ টাকা থেকে কমে ৪৩ হাজার ৮৫৬ টাকায় বিক্রি হবে।
এ হিসাবে ভরিতে দাম কমেছে ১ হাজার ১০৭ টাকা। ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ প্রতি ভরি ৩৯ হাজার ৪৮২ টাকা থেকে কমে ৩৮ হাজার ৬৬৬ টাকায় বিক্রি হবে। ফলে ভরিতে দাম কমল ৮১৫ টাকা। আর সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণ ২৫ হাজার ৬৬০ টাকা থেকে ৮১৫ টাকা কমে ২৪ হাজার ৮৪৪ টাকায় নেমে এসেছে। অন্যদিকে কমেছে রুপার দামও। আগের দাম অনুসারে প্রতি ভরি রুপা ১ হাজার ১০৮ টাকা থেকে কমে ১ হাজার ৪৯ টাকায় বিক্রি হবে। তবে একজন ক্রেতা কোনো জুয়েলারির দোকান থেকে স্বর্ণের অলংকার কিনতে চাইলে তাকে ৫ শতাংশ হারে ভ্যাট দিতে হয়। এরপর ভরিতে প্রায় ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত মজুরি দিতে হয়। জানা গেছে, মানভেদে দেশে চার ধরনের স্বর্ণ বিক্রি হয়। এর মধ্যে ২২ ক্যারেটে ৯১ দশমিক ৬ শতাংশ, ২১ ক্যারেটে ৮৭ দশমিক ৫ শতাংশ, ১৮ ক্যারেটে ৭৫ শতাংশ বিশুদ্ধ স্বর্ণ থাকে। আর পুরনো স্বর্ণালংকার গলিয়ে তৈরি করা হয় সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণ। এক্ষেত্রে বিশুদ্ধ স্বর্ণের পরিমাণ নির্দিষ্ট করা নেই। এদিকে বাংলাদেশে স্বর্ণ পাচারের অভিযোগ করছেন অর্থনীতিবিদরা। জানতে চাইলে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক অর্থ উপদেষ্টা ড. এবি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, দীর্ঘদিন থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন বন্দর ভারতে স্বর্ণ পাচারের ট্রানজিট পয়েন্ট হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। এ সমস্যা সমাধানে স্বর্ণের নীতিমালা জরুরি।

0 comments:

Post a Comment