Last update
Loading...

গর্ভাশয় কেটে ফেলায় মামলা, ভুয়া সার্জন গ্রেফতার

বগুড়ায় ভুল অপারেশনে গর্ভাশয় কেটে ফেলায় ক্লিনিক মালিকসহ আটজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নাসিমা বেগম (২৮) নামে এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় এক ভুয়া সার্জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যায় শহরের কানুচগাড়ি এলাকায় নিউ শাহ সুলতান ক্লিনিকের মালিকসহ আটজনের বিরুদ্ধে এ মামলা করা হয়। আসামিরা হলেন- ক্লিনিক মালিক রেজাউল করিম, ম্যানেজার এ্যাপোলো, দালাল জুয়েল সরকার, কথিত চিকিৎসক আশিষ কুমার, মানবেন্দ্র পাল নিলয়, হাবিবুর রহমান হাবিব, নার্স সাথী এবং শামিমা। নাসিমা বেগম জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার কাশিরা গ্রামের তসলিম দেওয়ানের স্ত্রী। তিনি অভিযোগ করেন, শারীরিক সমস্যা হলে তিনি ডা. মনিরা শাহনাজের কাছে চিকিৎসা নেন।
চিকিৎসা চলাকালে বাপের বাড়ি বগুড়া শহরের মধ্য পালশা খন্দকারপাড়ার গ্যাদা সরকারের ছেলে জুয়েল সরকার তাকে পরিচিত ভালো চিকিৎসক ও ক্লিনিকে চিকিৎসা করানোর প্রস্তাব দেয়। গত ৮ এপ্রিল বেলা ২টার দিকে শহরের নিউ শাহ সুলতান ক্লিনিকে তাকে ভর্তি করে দেয় জুয়েল। নাসিমা বেগম আরও অভিযোগ করেন, আসামিরা অবৈধভাবে ক্লিনিক খুলে নিজেরা ডাক্তার ও নার্স সেজে অপারেশনের নামে গর্ভাশয় কেটে তাকে সন্তান ধারণে অক্ষম করেছে। পরে অন্য ডাক্তারের কাছে গেলে তিনি বিষয়টি নিশ্চিত হন। বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসলাম আলী জানান, মামলা রেকর্ড করার পর শনিবার রাতে শহরের ওই ক্লিনিক থেকে কথিত ডাক্তার (সার্জন) আশিষ কুমার রায়কে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

0 comments:

Post a Comment