Last update
Loading...

রাঙ্গামাটিতে বিক্ষোভ ও মহাসমাবেশ

পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করে সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান জোরদার করে সন্ত্রাস,চাঁদাবাজী,খুন,গুম অপহরণবন্ধের দাবীতে রবিবার রাঙ্গামাটিতে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে রাঙ্গামাটির হাজারো সাধারণ মানুষ। নিপীড়িত নির্যাতিত পার্বত্যবাসীর ব্যানারে রাঙ্গামাটি ও দশ উপজেলা থেকে হাজার হাজার সাধারণ মানুষ এই সন্ত্রাস বিরোধী বিক্ষোভে যোগ দেয়। সকালে রাঙ্গামাটি পৌরসভা চত্বর থেকে সাধারণ মানুষের সন্ত্রাসী বিরোধী মিছিলটি বের হয়ে শহরের জিমনেশিয়াম চত্ত্বরে গিয়ে সমাবেশে যোগ দেয়। এসময় শহরের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সন্ত্রাস বিরোধী সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম মুন্নার সভাপতিত্বে সমাবেশে সদস্য জাহাঙ্গীর কামাল, এডভোকেট পারভেজ তালুকদার, বেগম নুরজাহান, কাজী মোঃ জালোয়া, ইঞ্জিনিয়ার সাহাদাৎ ফরায়জী সাকিব ও জাহাঙ্গীর আলমসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। বক্তারা বলেন, পার্বত্য চুক্তির প্র্রায় দুইদশক পার হয়ে গেলেও পাহাড়ে খুন, গুম, অপহরণ, সন্ত্রাস,
চাঁদাবাজি দিনদিন বেড়েই চলেছে। সন্ত্রাসীদের কাছে পাহাড়ী-বাঙ্গালী সাধারণ মানুষের জীবন জিম্মি হয়ে পড়েছে। পাহাড় থেকে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের দাবি দীর্ঘদিনের। কিন্তু পাহাড়ে সন্ত্রাসীদের প্রতিনিয়ত হত্যা-গুমসহ অপহরণের ঘটনাগুলোতে মানবাধিকার সংগঠনগুলো সন্ত্রাসীদের পক্ষ নিয়ে বিতর্কিত অবস্থান নিচ্ছে। সন্ত্রাসীদের হাতে সাধারণ মানুষের নির্মম হত্যাকান্ড নিয়ে মানবাধিকার সংগঠনগুলোর রহস্যজনকভাবে নিরব ভূমিকা নিয়ে সমাবেশ উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। বক্তারা বলেন,শুধুমাত্র অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের মাধ্যমে পাহাড়ের সন্ত্রাসীদের দমন করা সম্ভব। পাহাড়ের সন্ত্রাসীদের দমনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান জোরদার করা নাহলে পার্বত্য এলাকা সন্ত্রাসীদের কাছে অভয়ারন্য হয়ে উঠবে। পাহাড়ে শক্ত হাতে সন্ত্রাস দমনের জন্য সরকারের প্রতি দাবী জানান বক্তারা।

0 comments:

Post a Comment