Last update
Loading...

আমিরাতের সাত রাজকুমারীর বিচার শুরু

গৃহকর্মীকে নিগ্রহের অভিযোগে বেলজিয়ামে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাত রাজকুমারীর বিচার শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার মামলাটি আদালতে উঠেছে এবং শুক্রবার সকাল থেকে বিবাদী পক্ষের আইনজীবীরা শুনানি শুরু করেছে। ২০০৮ সালে শেখ হামদা আল নাহিয়ান তার সাত কন্যাকে নিয়ে বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে গিয়েছিলেন। সেখানে একটি বিলাসবহুল হোটেলের একটি ফ্লোরের সব রুম ভাড়া নিয়ে তারা আট মাস অবস্থান করে। খবর বিবিসির। সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে আসা লোকলস্করের মধ্যে ২০ জনেরও বেশি গৃহকর্মী ছিল। এসব গৃহকর্মীকে তারা ক্রীতদাসের মতো করে রেখেছিল বলে অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগে বাদী জানিয়েছেন, এসব গৃহকর্মীকে হোটেল থেকে বের হতে দেয়া হতো না এবং রাজকুমারীদের উচ্ছিষ্ট খাবার খেতে বাধ্য করা হতো। হোটেল থেকে এক গৃহকর্মী পালিয়ে আসার পর তাদের এ ‘অমানবিক’ কর্মকাণ্ড ফাঁস হয়ে যায়। এক ভারতীয় খানসামাসহ রাজকুমারীদের অনুপস্থিতিতেই তাদের বিচার চলছে। নিগ্রহের অভিযোগ ছাড়াও তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ অনুমোদন ছাড়া গৃহকর্মীদের নিয়ে আসা এবং কাজের অনুমতিপত্র ও মজুরি ছাড়া কাজ করানোর অভিযোগ আনা হয়েছে। বিচারে দোষী প্রমাণিত হলে তাদের কয়েক লাখ ইউরো জরিমানাসহ কারাদণ্ডও হতে পারে। তবে অধিকার আন্দোলনকারীরা বলেছেন, কারাদণ্ড ভোগ করতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজকুমারীদের বেলজিয়ামের কাছে হস্তান্তর করার সম্ভাবনা খুব কম।

0 comments:

Post a Comment