Last update
Loading...

আ'লীগ থাকলে জনগণের কল্যাণ হয়: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বাংলাদেশে একটিই রাজনৈতিক দল রয়েছে, যেটি ক্ষমতায় থাকলে জনগণের কল্যাণ হয়।’ শনিবার গণভবনে আয়োজিত আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা ও মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রদানের মাধ্যমে মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে।’ এ সময় তিনি অভিযোগ করেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে মুক্তিযুদ্ধ করাকে অপরাধ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে। আর তারা পাকিস্তানিদের তোষামোদ করে।’ বিএনপি ক্ষমতায় গিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করে বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। জনগণের কল্যাণে আওয়ামী লীগ সরকারের কর্মকাণ্ড তুলে ধরে তিনি আরও বলেন, 'আওয়ামী লীগ আশ্রয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে হাজারো মানুষের আবাসনের ব্যবস্থা করেছে। ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতিটি পরিবারকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করার কাজ চলছে। একটি পরিবার যদি ২০০ টাকা জমাতে পারে তাহলে সরকার তাকে আরও ২০০ টাকা দিচ্ছে, যাতে তার ৪০০ টাকা সঞ্চয় হয়।
যাতে তারা নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে।' বর্ধিত সভায় উদ্বোধনী বক্তা হিসেবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, 'নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার কোনো বিকল্প নেই। আর এজন্য স্মার্ট, আধুনিক, সুসংগঠিত ও ঐক্যবদ্ধ হয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামী নির্বাচন মোকাবিলা করতে হবে। জনগণের সঙ্গে ভালো আচরণ করতে হবে। শেখ হাসিনার উন্নয়নকে মিনিংফুল করতে হবে।' প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপত্বিতে বর্ধিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, দলটির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ, জাতীয় পরিষদ সদস্যরা, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য ও সংসদ সদস্য, সব জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, দফতর ও উপ-দফতর সম্পাদক, প্রচার ও প্রকাশনা, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদকরা।

0 comments:

Post a Comment