Last update
Loading...

প্রধানমন্ত্রীকে ধাক্কা মেরে সামনে গেলেন ট্রাম্প!

‘আমার পথ থেকে সরে যা, আমি সামনে...’ বলেই মন্টিনিগ্রোর প্রধানমন্ত্রী ডুসকো মার্কোভিচকে ধাক্কা মেরে সরিয়ে দিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপর সবার সামনে গিয়ে দাঁড়ালেন তিনি। বৃহস্পতিবার বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে অনুষ্ঠিত ন্যাটো সম্মেলনে নজিরবিহীন এ ঘটনা ঘটে। সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ ন্যাটো অন্তর্ভুক্ত ২৭ সদস্য দেশের নেতারা। সেখানে তাদের নিয়ে ছবি তোলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছিল। হঠাৎ ট্রাম্প খেয়াল করেন, তিনি পড়ে রয়েছেন পেছনের সারিতে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট হয়ে তিনি পেছনে থাকবেন! আর সামনের কাতারে রয়েছেন ন্যাটোতে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগদান প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়া মন্টিনিগ্রোর প্রধানমন্ত্রী ডুসকো মার্কোভিচ। বিষয়টি একেবারেই মেনে নিতে পারলেন না ট্রাম্প। আর তখনই ঘটালেন ওই কাণ্ড। ছবি তোলার জন্য দুই সারিতে ৩১ জনের দাঁড়ানোর কথা ছিল। ট্রাম্প ও ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মেসহ বেশ কয়েকজনের স্থান ছিল সামনের সারিতে। আর মন্টিনিগ্রোর প্রধানমন্ত্রী মার্কোভিচের স্থান ছিল পেছনের সারিতে। ভিডিওতে দেখা গেছে, হঠাৎই ট্রাম্প পেছনের সারি থেকে আসতে গিয়ে মার্কোভিচকে কাঁধে ধাক্কা মারেন। সম্মেলনের পর সাংবাদিকদের মার্কোভিচ বলেন, ‘আমি সত্যিই খেয়ালও করিনি। এটা স্বাভাবিক যে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট সামনে দাঁড়াবেন।’ ন্যাটোতে মন্টিনিগ্রোর সদস্যপদের প্রতি সমর্থন দেয়ায় মার্কোভিচ ট্রাম্পকে ধন্যবাদ জানান। আগামী মাসে ন্যাটোর ২৯তম সদস্য হতে যাচ্ছে বলকান রাষ্ট্রটি। এদিকে ট্রাম্পের এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে ইন্টারনেটে।
ট্রাম্পের এই কাণ্ড দেখে মজা করে অনেকেই বিভিন্ন পোস্ট করেন। সমালোচনাও করেন অনেকে। স্থানীয় পত্রিকা ভিজেস্তি লিখেছে, দৃশ্যত ট্রাম্প এমন কাউকে চান না যিনি কিনা সম্মেলনে তার উপস্থিতিকে ম্লান করে দেন। জার্মানরা খুবই খারাপ-ট্রাম্প: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ন্যাটো ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে আলোচনায় জার্মানদের নিয়ে ঔদ্ধত্যপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। বলেছেন, ‘জার্মানরা খুবই খারাপ।’ বৃহস্পতিবার ব্রাসেলসে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতাদের সঙ্গে বৈঠককালে জার্মানি কারসাজির মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে গাড়ি বিক্রি করছে অভিযোগ করে এ মন্তব্য করেন তিনি। জার্মানির সাময়িকী ডের স্পাইগেল এ তথ্য জানিয়েছে। ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জ্যঁ ক্লদ জাঙ্কার, ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রধান ডোনাল্ড টাস্ক ও অন্যান্য জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার সঙ্গে বৈঠকে ট্রাম্প বলেন, ‘জার্মানরা খারাপ, খুবই খারাপ। দেখুন তারা যুক্তরাষ্ট্রে লাখ লাখ গাড়ি বিক্রি করছে। ভয়াবহ। আমরা এটি বন্ধ করে দেব।’ বৈঠকে উপস্থিত ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদের সামনে বারবার এ কথা উচ্চারণ করেন ট্রাম্প। বৈঠকে উপস্থিত একটি সূত্র জানায়, এ সময় জার্মানির পক্ষ নিয়ে বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করেন জাঙ্কার। তিনি ট্রাম্পকে জানান, মুক্ত বাণিজ্য সবাইকেই সুবিধা দেয়। এর আগে ট্রাম্প অভিযোগ করেছিলেন, জার্মানিতে উৎপাদিত লাখ লাখ গাড়ি আমেরিকায় বিক্রি হয়। কিন্তু আমেরিকান খুব কম গাড়িই জার্মানিতে বিক্রি হয়। তিনি অতিরিক্ত শুল্ক আরোপের মাধ্যমে জার্মানির এ সুবিধা বন্ধ করে দেবেন।’ শুক্রবার ইতালিতে জি-সেভেন সম্মেলনে ট্রাম্পের সঙ্গে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেলের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। ট্রাম্পের এ মন্তব্যের বিষয়ে মার্কেলের অফিস কিংবা হোয়াইট হাউস কোনো মন্তব্য করেনি।

0 comments:

Post a Comment