Last update
Loading...

এবার বিচারপতি কারনানের কারাদণ্ড

আদালত অবমাননার দায়ে ভারতের কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সিএস কারনানকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দিল দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। পাশাপাশি, সোমবার কারনান প্রধান বিচারপতিসহ ৮ বিচারপতির কারাদণ্ডের ব্যাপারে যে নির্দেশ দিয়েছিলেন, তা বাতিলও করে দিয়েছে শীর্ষ আদালত। মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি জেএস খেহরের নেতৃত্বাধীন ৭ বিচারপতির বেঞ্চ বলেছে, ‘আমরা যদি কারনানকে জেলে না পাঠাই, তবে অভিযোগ উঠবে যে বিচারপতিরা আদালত অবমাননা করলে তা মকুব করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট।’ বিচারপতি কারনানের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে তার কড়া শাস্তির দাবি জানান অ্যাডিশনাল সলিসিটর জেনারেল মণিন্দর সিং, শীর্ষ আইনজীবী কেকে বেণুগোপাল ও রূপিন্দর সিং সুরি। তারই জবাবে শীর্ষ আদালত জানায়, ‘অবমাননা করলে কখনও দেখা হবে না সেটা কে করছেন,
তিনি একজন সাধারণ মানুষ নাকি বিচারপতি।’ বিচারপতি কারনান যে নির্দেশগুলি দিয়েছে তা সম্প্রচার করা বা প্রকাশ করা থেকে সংবাদমাধ্যমকেও বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালতের বিচারপতিদের বিরুদ্ধে বেশ কিছুদিন ধরেই বিতর্কিত মন্তব্য করে আসছেন কারনান। মাদ্রাজ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ও অন্যান্য বিচারপতিদের বিরুদ্ধে বারবার দুর্নীতির অভিযোগ করে আসায় কারনানের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা শুরু করেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ। এদিকে, সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সিএস কারনান ভারতের প্রধান বিচারপতি এবং অন্য সাত বিচারপতিকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন। ‘তফশিলি জাতি ও তফশিলি উপজাতি অত্যাচার আইন ১৯৮৯’ এবং ২০১৫-র সংশোধিত আইনে দোষী সাব্যস্ত করে তিনি তাদের এই শাস্তি দেন। তিনি ভারতের শীর্ষ আদালতের বিচারপতিদের জেলে পাঠানোর নির্দেশের পাশাপাশি প্রত্যেককে এক লাখ রুপি করে জরিমানাও করেন। অনাদায়ে বিচারপতিদের আরো ছ’মাসের জেল। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

0 comments:

Post a Comment