Last update
Loading...

নৌকায় ভোট না দেয়ায় নির্যাতনের পর স্ত্রীকে তালাক

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পাঁচগ্রাম ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর নৌকা প্রতীকে ভোট না দেয়ায় স্ত্রী সাথী বেগমকে (৩৫) তালাক দিলেন পাষণ্ড স্বামী আলম মোল্লা। এর আগে দুই সন্তানের জননী সাথীকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়। এরপর তাকে চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান আলম মোল্লা। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে উপজেলার মহিষখোলা গ্রামে।
২৩ মে অনুষ্ঠিত পাঁচগ্রাম ইউপি নির্বাচনে মহিষখোলা গ্রামের আলম মোল্লা তার স্ত্রী সাথী বেগমকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জহুরুল হককে নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে বলেন। কিন্তু ভোট কেন্দ্রে গিয়ে সাথী বেগম স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইফুজ্জামানকে আনারস মার্কায় ভোট দেন। বিষয়টি ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জহুরুল হকের দৃষ্টিগোচর হয়। তিনি বিষয়টি সাথী বেগমের স্বামী আলম মোল্লাকে জানান। এতে ক্ষিপ্ত আলম অমানুষিক নির্যাতনের পর সাথীকে তালাক দেন। এরপর তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠান। সাথী বেগম উপজেলার পেড়লী গ্রামের বাকা মোল্লার মেয়ে।

0 comments:

Post a Comment