Last update
Loading...

শ্রীলংকায় মৌসুমি বৃষ্টিপাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬৪

শ্রীলংকায় মৌসুমি বৃষ্টিপাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬৪ জনে দাঁড়িয়েছে। বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট ভূমিধসে চাপা পড়া বেশ কয়েকজনের লাশ উদ্ধারের পর মৃতের সংখ্যা ১৬৪ জনে দাঁড়ালো। সোমবার দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কেন্দ্র (ডিএমসি) একথা জানিয়েছে। শুক্রবারের প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে দ্বীপটিতে ১৪ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগের ফলে শ্রীলংকার দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষের বাড়ি পানিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়ায় তারা অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছে। খবর এএফপি’র। ডিএমসি জানিয়েছে, প্রাকৃতিক দুর্যোগটিতে এখনো ১০৪ জন নিখোঁজদের তালিকায় রয়েছে এবং আরো ৮৮ জনকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের সময় দক্ষিণাঞ্চলীয় বাদ্দেগামা এলাকায় বিমান বাহিনীর একটি এমআই-১৭ হেলিপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে। ওই অঞ্চলের এক পুলিশ কর্মকর্তা টেলিফোনে জানান, ‘হেলিকপ্টারটি একটি বাড়ির ওপর বিধ্বস্ত হয়। তবে সৌভাগ্যক্রমে এতে কেউ প্রাণ হারায়নি।’ দুর্গত অঞ্চলগুলোতে খাবার ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ ও আটকে পড়া গ্রামবাসীদের উদ্ধারের জন্য বিমান বাহিনী বেশ কয়েকটি হেলিকপ্টার মোতায়েন করেছে। সরকার জানিয়েছে, মৌসুমি বৃষ্টিপাত থেমে যাওয়ায় সপ্তাহান্তে ত্রাণ অভিযান জোরদার করা হয়। যদিও আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, সোমবার ও মঙ্গলবার আরো বৃষ্টিপাত হতে পারে। এতে ত্রাণ তৎপরতা বিঘ্নিত হতে পারে। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত রতনপুরা ও কালুতারা জেলায় বন্যার পানি কমেছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগটিতে প্রায় দুই হাজার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত বা ধ্বংস হয়েছে।

0 comments:

Post a Comment