Last update
Loading...

গাজীপুরে মটরসাইকেল দুর্ঘটনায় হতাহত পুরো পরিবার

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে সড়ক দুর্ঘটনায় মটরসাইকেল আরোহী একই পরিবারের দুই শিশু সন্তান সহ তাদের বাবা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ওই শিশুদের মা রাহেলা আক্তার (৩০) গুরুতর আহত হয়েছেন। সোমবার রাত সোয়া ৮টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে কালিয়াকৈর উপজেলার সূত্রাপুর বোর্ডঘর এলাকায় এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের মোঃ সফিকুর রহমান (৩৫), তার শিশু কন্যা অঞ্জনা আক্তার (৬) ও দেড় বছরের ছেলে মোঃ এলাহী। গুরুতর আহত সফিকুরের স্ত্রী রাহেলা আক্তারকে নিকটস্থ মির্জাপুর কুমুদিনি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গাড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান জানান, সফিকুর রহমান স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বড়ইবাড়ি এলাকায় শশুড়বাড়িতে বেড়াতে যান।
বেড়ানো শেষে শ্বশুর বাড়ি থেকে সোমবার সন্ধ্যার দিকে একটি মোটরসাইকেলযোগে দুই সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে টাঙ্গাইলের বাইসাইলের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। যাওয়ার পথে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের উপজেলার সূত্রাপুর বোর্ডঘর এলাকায় পৌঁছালে ন্যাশনাল ট্রাভেলসের একটি বাস মটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এতে মটরসাইকেলটি ছিটকে দুমড়ে মুচরে সড়কের পাশে পড়ে যায়। এসময় মটরসাইকেলে থাকা সফিকুর রহমান, তার মেয়ে অঞ্জনা ও দেড় বছরের ছেলে এলাহী ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এতে গুরুতর আহত হন সফিকুরের স্ত্রী রাহেলা আক্তার। পরে আশপাশের লোকজন আহত রাহেলাকে উদ্ধার করে মির্জাপুর কুমুদিনি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ নিহত তিনজনের লাশ উদ্ধার কারে গোড়াই হাইওয়ে থানায় নিয়ে যায়। এছাড়া পুলিশ ঘাতক বাসটিকে আটক করেছে। গোড়াই হাইওয়ে থানার ওসি জানান, ঘটনাস্থলেই বাসের চাপায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বাসটি আটক করা গেলেও চালক পালিয়ে গেছে।

0 comments:

Post a Comment