Last update
Loading...

লাতিনত্রয়ীর ১০০ গোল

ম্যাচের ২১ মিনিটে নেইমারের গোলে লিড নিয়েছিল বার্সেলোনা। ১১ মিনিট পর গোল শোধ করে দেন ভিয়ারিয়ালের বাকাম্বু। এরপর বিরতির বাঁশি বাজার ঠিক আগে আবারও বার্সাকে এগিয়ে দেন লিওনেল মেসি (২-১)। এই গোলের একটি তাৎপর্য আছে। এ মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এটি বার্সার আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের ৫০তম গোল। আর এবারের লা লীগায় ৩৪তম। ভিয়ারিয়ালের জালে বল পাঠিয়ে মেসি এ মৌসুমে ইউরোপের শীর্ষ পাঁচটি লীগের মধ্যে প্রথম ফুটবলার হিসেবে গোলের হাফ সেঞ্চুরি করলেন। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ১১ বার লক্ষ্যভেদ করেছেন মেসি। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর চেয়ে একটি গোল বেশি তার। শেষ ১০ মৌসুমে এ নিয়ে পঞ্চমবার আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মেসি সব ধরনের প্রতিযোগিতায় ৫০ গোল টপকালেন। ২০১১-১২ মৌসুমে তিনি ৭৩ গোল করেছিলেন ৬০ ম্যাচে। এবার তিনি ৫০তম গোল করেন নিজের ৪৯তম ম্যাচে। পরে ৮২ মিনিটে আরেকটি গোল করে সংখ্যাটা নিয়ে যান ৫১-তে। বার্সেলোনা ম্যাচ জেতে ৪-১ ব্যবধানে। এই জয়ে লা লীগায় শীর্ষে থাকা কাতালানরা নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের ওপর চাপ অব্যাহত রাখল। শনিবার ন্যুক্যাম্পে অনুষ্ঠিত ম্যাচে কীর্তি আরও একটা হয়েছে। নেইমার ও মেসির পর ম্যাচের ৬৯ মিনিটে সুয়ারেজ তৃতীয় গোল করেন বার্সার পক্ষে।
এই গোলে মিলিতভাবে লাতিনত্রয়ী এ মৌসুমে ১০০ গোল করলেন। এরমধ্যে নেইমার ১৬ ও সুয়ারেজ ৩৪ গোল করেন। বাকি ৫০ গোল মেসির। ম্যাচের শেষ ভাগে মেসি আরেকটি গোল (৫১) করায় সংখ্যাটা হয়েছে ১০১। বার্সার প্রস্তাবে মেসির ‘না’ অনুরোধে ঢেঁকি গেলার দিন শেষ। নিজের প্রাপ্যটা আদায় করে নিতে দর কষাকষির বিদ্যা রপ্ত করে ফেলেছেন মেসি! স্প্যানিশ দৈনিক ‘এএস’ এর দাবি, চুক্তি নবায়নের জন্য বার্সেলোনার দেয়া প্রথম প্রস্তাব সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। নতুন চুক্তির প্রস্তাবে বছরে ৩০ থেকে ৩৫ মিলিয়ন ইউরো বেতন ধরা হয়েছিল। কিন্তু মেসি তাতে রাজি নন। আরও ভালো প্রস্তাব আশা করছেন তিনি! সেজন্য অপেক্ষা করতে কোনো সমস্যা নেই তার। কিন্তু তাড়া আছে বার্সেলোনার। মেসির বর্তমান চুক্তির মেয়াদ ২০১৮ সালের জুন পর্যন্ত। এ মৌসুমে চুক্তি নবায়ন না হলে দলের প্রাণভোমরাকে বিনা ট্রান্সফার ফি’তে হারানোর শঙ্কায় পড়ে যাবে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা। সুয়ারেজ ও নেইমারের সঙ্গে নতুন চুক্তির পর এখন মেসির ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত করতে উদগ্রীব বার্সেলোনা। ওয়েবসাইট।

0 comments:

Post a Comment