Last update
Loading...

এভারেস্ট চূড়ায় অক্সিজেন চুরি

হিমালয়ের এভারেস্ট আরোহীদের বিভিন্ন ক্যাম্প থেকে চুরি হয়ে যাচ্ছে অক্সিজেনের বোতল। আর এটা দিন দিন বেড়েই চলেছে। বিষয়টি উদ্বিগ্ন করে তুলেছে বিদেশি আরোহী ও শেরপাদের। খবর বিবিসির। পর্বতারোহীরা জানান, অক্সিজেনের বোতল চুরি আরোহীদের জীবন ঝুঁকিতে ফেলতে পারে। কারণ আবহাওয়া এবং সময়ের সঙ্গে মিল রেখে তারা নির্দিষ্ট পরিমাণ অক্সিজেন বোতলে নিয়ে বিশ্বের সর্বোচ্চ এই পাহাড়টিতে আরোহণ করেন। প্রয়োজনীয় অক্সিজেন না পেলে শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দেয় তাদের। ইতিমধ্যে এভারেস্টে আরোহণ করতে যাওয়া সর্বশেষ দলটি এ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, অনেক অনভিজ্ঞ আরোহী এবং অযোগ্য গাইডরা এই অবস্থা সৃষ্টির জন্য দায়ী। সম্প্রতি এভারেস্ট চূড়া থেকে ফিরে আসা নিমা তেনজি শেরপা বলেন, ‘এটা সেখানে ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিভিন্ন বিদেশি দলের কাছ থেকে শুনতাম, তাদের অক্সিজেনের বোতল অদৃশ্য হয়ে যাচ্ছে এবং এটা তাদের জীবনের জন্য হুমকি। বিশেষ করে যারা এখনও চূড়ায় পৌঁছতে পারেনি। যাত্রাপথে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করেই তারা অক্সিজেনের বোতলগুলো নিয়ে এসেছে।
তাদের ফিরে যাওয়ার জন্যও অক্সিজেন প্রয়োজন হবে।’ অক্সিজেনের বোতল চুরি সম্পর্কে সামাজিক মাধ্যমেও পোস্ট দিচ্ছেন বিদেশি পর্বতারোহীরা। সোমবার টিম মোসেডেল নামের পর্বতারোহীদের একজন নেতা লিখেছেন, আমাদের সরবরাহ থেকে আরও সাত বোতল অক্সিজেন হারিয়ে গেছে। এবার চুরি হয়েছে এভারেস্টের চূড়ার আগে ৭৯০০ মিটার উচ্চতায় সাউথ কলের ক্যাম্প ফোর থেকে। এভারেস্ট পৌঁছাতে আমাদের আরও কয়েক দিন লাগবে। আমাদের আরও কয়েক বোতল অক্সিজেন হারাবে? এর আগে এভারেস্টের কাছে লোটসে পর্বত থেকেও একই ধরনের একটি পোস্ট দিয়েছিলেন তিনি। বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনমতে, এই মৌসুমে এ পর্যন্ত ১০ জন আরোহী নিহত হয়েছেন। তবে নেপালি কর্তৃপক্ষের ভাষ্যমতে, নিহতের সংখ্যা পাঁচ। তবে এর মধ্যে অক্সিজেনের বোতল চুরি সংক্রান্ত ঘটনায় কেউ নিহত হয়নি। নেপাল ন্যাশনাল মাউন্টেন গাইডস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ফুর্বা নমগিয়েল শেরপা বলেন, চোরেরা তাঁবুর তালা ভেঙে অক্সিজেনের বোতল, খাবার এবং রান্না করার গ্যাস নিয়ে গেলে আমরা কী করতে পারি? এটা ক্রমেই একটি প্রথা হয়ে উঠছে।’

0 comments:

Post a Comment