Last update
Loading...

৬০০ ছেলে ফুটবলারের টুর্নামেন্টে একমাত্র মেয়ে

আর দশটা মেয়ের মতো সামার স্ট্যানটনও চুল বাঁধে। যদিও রাঁধে না। রান্না করার বয়স যে তার হয়নি। সকালের নাশতায় ডিম খায়। মনে হতেই পারে, সাধারণ মেয়ে বুঝি। তার সম্পর্কে এমনটি ভাবলে ভুল করবেন। সে মোটেও সাধারণ নয়। ছেলেদের ফুটবল দলে একমাত্র মেয়ে। শুধু কী দলে। গোটা টুর্নামেন্টে একমাত্র মেয়ে সামার। আর কী আশ্চর্য, সে টিম ক্যাপ্টেন। দুবাই ব্রিটিশ স্কুলের শিক্ষার্থী সামার ছেলেদের ফুটবল টিমের অধিনায়ক। ছেলেরা তা মেনেও নিয়েছে। না মেনে উপায় আছে! অধিনায়ক তো হয় দলের সেরা খেলোয়াড়। সামার ঠিক তাই। দুবাইয়ের আর দশটা মেয়ে থেকে একেবারে আলাদা। আগামী মাসে ১১-তে পা দেবে এই ফুটবলকন্যা। সপ্তাহের বেশিরভাগ দিন কাটে তার তুমুল ব্যস্ততায়। সাঁতার কাটে। জিমন্যাস্টিক্স করে। নেটবল খেলে। আর পড়াশোনা তো আছেই। কিন্তু ফুটবল খেলতে মাঠে নামলে সামার তখন সব ভুলে যায়। ফুটবল খেলাটা তার নেশা। শনিবার এলে তাকে ঘরে আটকে রাখা যায় না। ছুটে যায় মাঠে। বলে লাথি মেরেই সুখ তার। গত পরশু দুবাইয়ে ৬০০-র বেশি ক্ষুদে ফুটবলারকে নিয়ে শুরু হয়েছে জেবেল ইয়ুথ লীগ। লীগের অন্যতম সংগঠক অ্যাডাম বারোসের ধারণা, এ বছর টুর্নামেন্টে সামারই একমাত্র মেয়ে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৫৫ একাডেমির ৬০০-রও বেশি ক্ষুদে ফুটবলার ছয়টি গ্রুপে ভাগ হয়ে এ টুর্নামেন্টে খেলছে। সূত্র: ওয়েবসাইট।

0 comments:

Post a Comment