Last update
Loading...

একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্ত্রীকে হারালেন মুর্তজা বশীর

রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালের আইসিইউতে শুয়েই চিরদিনের জন্য প্রিয়তমা স্ত্রীকে হারালেন শিল্পী মুর্তজা বশীর। শনিবার সকাল ৬টা ৫০ মিনিটের দিকে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিল্পীর স্ত্রী আমিনা বশীর মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। এই দম্পতির মেয়ে মুনীরা বশীর গণমাধ্যমকে মায়ের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, তার মা ‘লাইফ সাপোর্টে’ ছিলেন। সকাল পৌনে ৭টার দিকে তা খুলে নেয়া হয়। দুপুরে জোহরের নামাজের পর গুলশানের আজাদ মসজিদে আমিনা বশীরের প্রথম জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। এরপর মনিপুরীপাড়ায় বায়তুশ শরফ মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা শেষে বনানীতে তাকে দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন তার মেয়ে।
মুনীরা বশীর বলেন, ‘মা আর নেই। একই হাসপাতালের আইসিইউতে আমার বাবা শিল্পী মুর্তজা বশীর। তবে অসুস্থতা থাকা সত্ত্বেও বাবাকে রিলিজ নিয়ে যাচ্ছি।’ ভাষাবিজ্ঞানী ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর ছেলে মুর্তজা বশীর বৃহস্পতিবার থেকে অ্যাপলো হাসপাতালের আইসিইউতে রয়েছেন। তার ফুসফুসে পানি জমেছে। পাশাপাশি তার কিডনিতেও সমস্যা রয়েছে। তবে বর্তমানে মুর্তজা বশীরের অবস্থা অনেকটাই স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। চিত্রশিল্পী, কার্টুনিস্ট ও ভাষা আন্দোলনের অন্যতম সক্রিয় কর্মী মুর্তজা বশীরের জন্ম ১৯৩২ সালের ১৭ আগস্ট। উপমহাদেশের প্রখ্যাত বহু ভাষাবিদ, জ্ঞানতাপস ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ’র সন্তান তিনি। ১৯৪৯ সালে ঢাকা আর্ট কলেজে (বর্তমান চারুকলা ইন্সটিটিউট) ভর্তি হন তিনি। এর আগে থেকেই তিনি ভাষা আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। এ জন্য কারাভোগও করেন তিনি।

0 comments:

Post a Comment