Last update
Loading...

খাগড়াছড়িতে বাবা-ছেলে হত্যায় আ'লীগের ৩৪ জনের নামে মামলা

খাগড়াছড়িতে ব্যবসায়ী চিরঞ্জয় ত্রিপুরা ও তার ছেলে কর্ণ জ্যোতি ত্রিপুরাকে হত্যা এবং নারী গণধর্ষণের অভিযোগে আওয়ামী লীগের ৩৪ নেতাকর্মীসহ ৬৪ জনের নামে মামলা করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে নিহত চিরঞ্জয় ত্রিপুরার ছেলে নিহার ত্রিপুরা বাদী হয়ে খাগড়াছড়ি সদর থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ৪। মামলায় অন্যতম আসামি করা হয়েছে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য খোকনেশ্বর ত্রিপুরাকে। খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেক আব্দুল হান্নান মামলার দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মামলায় সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য খোকনেশ্বর ত্রিপুরা, জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু এবং ইউপি সদস্য কালিবন্ধু ত্রিপুরাসহ ৩৪ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া ৩০ জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করা হয়। ওসি বলেন, পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারের সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছে। প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে জেলা সদরের থলিপাড়া এলাকায় ত্রিপুরা অধ্যুষিত গ্রামে কালিবন্ধু ত্রিপুরা ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলায় ব্যবসায়ী চিরঞ্জয় ত্রিপুরা ও তার ছেলে কর্ণ জ্যোতি ত্রিপুরা নিহত এবং চিরঞ্জয় ত্রিপুরার স্ত্রী ভবেলক্ষী ত্রিপুরা ও ছেলে কর্ণ জ্যোতি ত্রিপুরার স্ত্রী বিজলি ত্রিপুরা গুরতর আহত হন। সন্ত্রাসীরা ব্যবসায়ী চিরঞ্জয় ত্রিপুরা ও তার ছেলে কর্ণ জ্যোতি ত্রিপুরাকে প্রথমে গুলি ও পরে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় চিরঞ্জয় ত্রিপুরার স্ত্রী ভবেলক্ষী ত্রিপুরা ও ছেলে কর্ণ জ্যোতি ত্রিপুরার স্ত্রী নারী কার্বারী বিজলি ত্রিপুরা পাশবিক নির্যাতনের শিকার হন। বর্তমানে আহতরা খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

0 comments:

Post a Comment