Last update
Loading...

দেশের পরিস্থিতিতে তৃতীয় পন্থা বা মধ্য পন্থার সুযোগ নেই : ইনু

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, দেশে যে যুদ্ধ পরিস্থিতি চলছে তাতে তৃতীয় পন্থা বা মধ্য পন্থার কোনো সুযোগ নেই। তিনি বলেন, যারা তৃতীয় পন্থা বা মধ্য পন্থার নামে বিএনপি-জামাতকে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে রাজনৈতিক সাহায্য করছেন। তিনি তাদের এই আত্মঘাতী পথ পরিহার করে ১৪ দল-মহাজোটে শামিল হবার আহ্বান জানান। আজ শনিবার ঢাকার মহানগর নাট্যমঞ্চে জাসদের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি সভার প্রকাশ্য উদ্বোধনী অধিবেশনে হাসানুল হক ইনু একথা বলেন। ইনু আরো বলেন, বিএনপি-জামায়াত ও এদের সহযোগীরা বাংলাদেশের জন্য একটি স্থায়ী বিপদ, দুষ্টক্ষত। তিনি বলেন, শুধু আগামী ২০১৯ সালের নির্বাচনেই ক্ষমতার বাইরে রাখা নয়, বিএনপি-জামায়াত, উগ্রবাদী আর উগ্রবাদীদের সঙ্গীকে চিরদিনের জন্য রাজনৈতিকভাবে বর্জন করতে হবে।
ইনু বলেন, ১৯৭৫ এর পর যে পাকিস্তানপন্থী রাজনীতি চাপিয়ে দেয়া হয়েছিল ২০০৮ সালের পর থেকে সেই পাকিস্তানপন্থী ধারার জঞ্জাল পরিষ্কার করে বাংলাদেশকে মুক্তিযুদ্ধের ধারায় ফিরিয়ে আনার যুদ্ধ চলছে। এ যুদ্ধে ১৪ দল-মহাজোটের ঐক্য মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশের পক্ষে রাজনীতির ঢাল। এ ঢালকে রক্ষা করতে হবে। ইনু আরও বলেন, ১৪ দল ও মহাজোটকে আরও শক্তিশালী করতে মহাজোটের ছাতার নিচ থেকে দুর্নীতিবাজ-দলবাজদের বিতাড়ন করার পাশাপাশি ১৪ দল-মহাজোটের শরিকদের মধ্যে পারস্পরিক অবহেলা, উন্নাসিকতাপূর্ণ আচরণ পরিহার করতে হবে। উদ্বোধনী অধিবেশনে খসড়া রাজনৈতিক রিপোর্ট উত্থাপন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি। বক্তব্য রাখেন কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট রবিউল আলম, স্থায়ী কমিটির সদস্য প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, সহ-সভাপতি মীর হোসাইন আখতার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. হাবিবুর রহমান শওকত। প্রকাশ্য উদ্বোধনী অধিবেশনের পর সাধারণ সম্পাদক কর্তৃক উত্থাপিত রাজনৈতিক রিপোর্টের উপর আলোচনা করছেন জেলা ও উপজেলা কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও প্রতিনিধিগণ। পার্টির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় যে, প্রতিনিধি সভায় জাসদের সাংগঠনিক জেলা, উপজেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ নির্ধারিত ১৩০০ জন প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেছেন।

0 comments:

Post a Comment