Last update
Loading...

ইমরানকে ‘কুত্তার মতো’ পেটানোর হুমকি ছাত্রলীগ নেতার

গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারকে ‘কুত্তার মতো’ পেটানোর হুমকি দিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতারা। হেফাজতে ইসলামের দাবি মেনে সুপ্রিম কোর্ট থেকে ভাস্কর্য সরানোর প্রতিবাদে গণজাগরণমঞ্চের নেতাকর্মীদের মিছিল থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে স্লোগান ওঠায় সোমবার রাতে শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে ছাত্রলীগ নেতারা এ হুমকি দেন। এর আগে একটি মিছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাহবাগে গিয়ে শেষ হয়। মিছিল ও মিছিল পূর্ব সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শিক্ষ ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক গোলাম রব্বানী। তিনি বলেন, ইমরান এইচ সরকারকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশে যেখানে পাওয়া যাবে সেখানে কুত্তার মতো পিটিয়ে ক্যাম্পাস ছাড়া করা হবে। একই সঙ্গে ইমরান এইচ সরকার ও তার ‘গংদের’ বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদোহীতার মামলা করারও হুমকি দেন তিনি। গোলাম রব্বানী বলেন, আমাদের নেত্রী ও ছাত্রলীগের বদন্যতায় ইমরানকে আমরা তার প্রাপ্য যোগ্যতার চেয়ে অনেক উপরে স্থান দিয়েছিলাম ভাই হিসেবে। কিন্তু এই বেঈমান কুত্তার ..... আমাদের মাকে নিয়ে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে যে কটূক্তি করেছে তার জন্য কোনো ছাড় নয়। তার স্পর্ধা বেড়ে গেছে। তাই আর কোনো ছাড় নয়। তার বিরুদ্ধে এবং তার গংদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদোহীতার মামলা হবে। এর আগে মিছিল থেকে ‘ইমরানের দুই গালে জুতা মারো তালে তালে’ ইমরানের চামড়া, কুত্তা দিয়ে কামড়া’ হৈ হৈ রৈ রৈ ইমরান সরকার গেলি কই’, ‘একটা একটা ইমরান ধর, ধইরা ধইরা জবাই কর’, ‘একটা একটা গং ধর, ধইরা ধইরা জবাই কর’, ‘একটা একটা সনাতন ধর, ধইরা ধইরা জবাই কর’সহ নানা সেøাগান দেয় বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার ভাস্কর্যটি সরিয়ে নেওয়ার প্রতিক্রিয়ায় ইমরান বলেছিলেন, মৌলবাদীদের তুষ্ট করতে নোংরা রাজনৈতিক খেলায় নেমেছে সরকার। আখের গোছাতে ব্যবহার করছে ধর্মকে। ভাস্কর্য সরানোর প্রতিবাদে পরদিন শাহবাগে গণজাগরণের মিছিলে ‘ছি ছি হাসিনা, লজ্জায় বাঁচি না’ সেøাগান ওঠে; ওই মিছিলে ইমরান এইচ সরকার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। ওই সেøাগানের ভিডিও ফেইসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। তার বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে সোমবার রাতে মিছিল বের করেন সংগঠনটির এক দল নেতা-কর্মী। এসময় শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক রাব্বানী বলেন, গণজাগরণ মঞ্চের নেতা-কর্মীরা প্রকাশ্যে জনসম্মুখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে বিদ্রুপাত্মক সেøাগান দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মানহানি করেছেন। এসময় ইমরানের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করারও হুমকি দেয়া হয়। একই সঙ্গে সমাবেশে ইমরান এইচ সরকারকে শাহবাগে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়। প্রসঙ্গত, গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার ছাত্রলীগেরই রংপুর মেডিকেল কলেজ শাখার আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন। তিনি শেখ হাসিনা সরকারের শিক্ষামন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য নূরুল ইসলাম নাহিদের জামাতা।

0 comments:

Post a Comment