Last update
Loading...

‘মালালার উপর হামলা ছিল সাজানো নাটক’

পাকিস্তানের নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাইয়ের উপর তালেবান হামলার ঘটনাটি সাজানো নাটক বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির এক নারী সংসদ সদস্য। ইমরান খানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মুসসারাত আহমেদাজেব টু্ইটার বার্তায় এ দাবি করেন। পাকিস্তানি গণমাধ্যম দ্যা ন্যাশন এ খবর জানিয়েছে। তিনি বলেন, বিবেকের তাড়নায় আমি সত্য প্রকাশ করছি। হয়তো এখনই সবাইকে সত্য জানাতাম না। কিন্তু উপজাতীয় এলাকা থেকে সিএসএস পরীক্ষায় শীর্ষ স্থান অধিকার করা জারমিনা ওয়াজির মালালার কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছেন বলে বলা হচ্ছে। একারণেই সত্যটা দিনের আলোয় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মুসসারাত আহমেদাজেব বলেন, এই এলাকায় অনেক নারীই আছেন, যারা চাপ অগ্রাহ্য করে পড়ালেখা চালিয়ে গেছেন। তারা স্মাতক অর্জন করেছেন। কিন্তু মালালার একটা অর্জনও কি দেখানো যাবে? তিনি টুইটে উল্লেখ করেন, জারমিনা কোনো মালালা নয়, এই বার্তা সবার নিকট পৌঁছে যাওয়া দরকার।
তিনি উল্লেখ করেছেন, মালালা যখন 'গুল মাকাই' লিখেছেন, তখন তিনি লিখতে বা পড়তেও পারতেন না। মুসসারাত বলেন, মালালা মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন, কিন্তু সোয়াতের হাসপাতালের সিটিস্কানে তার মাথায় কোনো গুলির অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। কিন্তু পেশোয়ারের সিএমএইচে গিয়ে তার মাথায় গুলি পাওয়া যায়। পরে যারা তার চিকিৎসা করেছিলেন, তাদের সবাইকে সরকারের তরফ থেকে প্লট দেয়া হয়েছিল। তিনি দাবি করেন, মালালার বাসায় হামলার আগে তিন মাস ধরে এক আমেরিকান থাকতেন। তিনি মালালাকে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন, পরবর্তীতে তার ভূমিকা কী হবে। ২০১২ সালে পাকিস্তানে জঙ্গিগোষ্ঠী তালেবানের ভয়াবহ হামলার শিকার হয়েছিলেন মালালা। এরপরে চিকিৎসা নিতে লন্ডনে যান তিনি। সেখানেই এখন বসবাস করছেন মালালা। এরপর ২০১৪ সালে ভারতের শিক্ষা ও শিশু অধিকারকর্মী কৈলাস সত্যার্থীর সঙ্গে যৌথভাবে নোবেল পুরস্কার পান মালালা।

0 comments:

Post a Comment