Last update
Loading...

‘সাজেকের খাদ্য সংকট নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চলছে’

রাঙ্গামাটির দূর্গম সাজেক ইউনিয়নের খাদ্য সংকট মোকাবেলায় সরকার পর্যাপ্ত ত্রাণ তৎপরতা চালালেও একটি কুচক্রী মহল হীন স্বার্থ হাসিলের লক্ষ্যে সাজেকের খাদ্য সংকট নিয়ে অপপ্রচার চালিয়ে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছে রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ। আজ বুধবার রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলের নেতারা এই অভিযোগ করেন। সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মুছা মাতব্বর বক্তব্য রাখেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, সাজেকে খাদ্য সংকটের খবর প্রকাশের পর সরকার, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে দ্রুত দূর্গত এলাকায় খাদ্য শষ্য পৌছিয়ে মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। পার্বত্য মন্ত্রণালয় ও ত্রান মন্ত্রনালয় ইতিমধ্যে সাজেকে আড়াই হাজার পরিবারের মধ্যে ৪০ মেট্রিক টন খাদ্য শষ্য ও নগদ ১১ লক্ষ টাকা বিতরণ করেছে।
দূর্গত এলাকার জন্য ত্রাণ মন্ত্রণালয় আরো ১০০ মেট্রিক টন খাদ্য শষ্য বরাদ্দ দিয়েছে। অথচ সরকারের ত্রাণ তৎপরতা সত্বেও সাজেকের খাদ্য সংকট নিয়ে একটি কুচক্রী মহল নানা অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। সাজেকের স্থানীয় অধিবাসীদের জুম চাষ করতে না দেয়ায় এবং ভারতের সীমান্ত এলাকায় কাটা তারের বেড়া দেয়ার কারণে স্থানীয় লোকজন সীমান্তে আগের মতো কেনা-কাটা করতে পারছে না। এ কারণে সাজেকের দুর্গম এলাকার মানুষকে খাদ্য সংকটের সম্মুখিন হয়েছে বলে নেতৃবৃন্দ উল্লেখ করেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, সাজেকে সীমান্ত এলাকায় ভারতের সঙ্গে সীমান্ত হাটের ব্যবস্থা করা গেলে এবং স্থানীয় অধিবাসীদের জুম চাষে বাধাদানকারীদের প্রতিহত করা গেলে আগামীতে এই খাদ্য সংকট দেখা দেবে না বলে নেতৃবৃন্দ আশা প্রকাশ করেন।

0 comments:

Post a Comment