Last update
Loading...

রাজ্জাকের ৫ উইকেট বিফলে

ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগে সপ্তম ম্যাচে প্রথম জয় পেল পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব। শনিবার তারা কলাবাগান স্পোর্টিং ক্লাবকে ৬২ রানে হারিয়েছে। জয়ের ধারা অব্যাহত রয়েছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের। ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ১০ রানে হারিয়ে সাত ম্যাচে সপ্তম জয় তুলে নিয়েছে তারা। গাজীর ওপেনার এনামুল হক বিজয় (৯৩) আবারও নড়বড়ে নব্বইয়ের শিকার হয়েছেন। বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে রানআউট থেকে বাঁচতে গিয়ে ডাইভ দিয়ে আহত হয়েছেন শেখ জামালের অধিনায়ক আবদুর রাজ্জাক। লীগে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার পাঁচ উইকেট নিয়েছেন তিনি। কিন্তু তার দল ২০ রানে খেলাঘরের কাছে হেরে গেছে। টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি (১০৩) পেয়েছেন খেলাঘরের রবিউল ইসলাম রবি। এর আগে খেলাঘর মাত্র দুটি ম্যাচে জয় পেয়েছিল। এবার তারা হারাল শেখ জামালকে। কিন্তু ম্যাচের ফল ছাপিয়ে আলোচনায় থাকল রাজ্জাকের ইনজুরি। বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে খেলাঘরের ছুড়ে দেয়া ২৬৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দলের চার ব্যাটসম্যান রানআউট হয়েছেন। এর মাঝে রানআউট থেকে বাঁচতে গিয়ে ডাইভ দিয়ে বড় ধরনের চোট পেয়েছেন শেখ রাজ্জাক। তাকে স্ট্রেচারে মাঠের বাইরে আনা হয়।
পরে হেলিকপ্টারে বিকেএসপি থেকে হাসপাতালে পাঠানো হয় রাজ্জাককে। শেখ জামাল ৪৭.২ ওভারে অলআউট হয় ২৪৬ রানে। তার আগে রবিউলের টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরিতে খেলাঘর আট উইকেটে ২৬৬ রান তোলে। রাজ্জাক ৫২ রান দিয়ে নেন পাঁচ উইকেট। তিন জয় নিয়ে খেলাঘর উঠে এসেছে সপ্তম স্থানে। ফতুল্লায় প্রথমে ব্যাট করে পাঁচ উইকেটে ২৭৮ রান করে পারটেক্স। সবাই দুই অংকের ঘরে পৌঁছান। সর্বোচ্চ ৫৮ রান করেন ইরফান শুকুর। জবাবে ইমরান আলীর পাঁচ উইকেটে ৪৬.১ ওভারে ২১৬ রানে অলআউট হয় কলাবাগান। ইমরান ৪২ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নেন। এর আগে আবাহনীর বিপক্ষে ৯৭ রানে আউট হয়েছেন গাজীর এনামুল। এদিন ব্রাদার্সের বিপক্ষে ৯৭ বলে ৯৩ করে আবারও সেঞ্চুরি মিস করলেন তিনি। তার সেঞ্চুরি ছুঁই ছুঁই ইনিংসেই ৪৮.৪ ওভারে ২৩৬ রানে অলআউট হয় গাজী গ্রুপ। ব্রাদার্সের পক্ষে তিনটি করে উইকেট নেন মোহাম্মদ সাদ্দাম ও অলক কাপালি। ছোট লক্ষ্য তাড়া করে জিততে পারেনি ব্রাদার্স। আবু হায়দার রনির চার উইকেটে ৪৮.৫ ওভারে ২২৬ রানে অলআউট হয় তারা।

0 comments:

Post a Comment