Last update
Loading...

বিটিসিএলের কর্মচারীদের রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের দাবি

বিটিসিএল শ্রমিক কর্মচারি ফেডারেল ইউনিয়ন (সিবিএ) নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সংস্থার ২০৭২ জন ওয়ার্ক চার্জর্ড কর্মচারীকে রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের দাবি জানিয়েছেন। একই সঙ্গে ১৮শ মাষ্টার রোল কর্মচারি ও বর্তমান সরকারের নিয়োগপ্রাপ্ত ক্যাজুয়াল কর্মীদের স্থায়ী করার দাবি জানান। সোমবার বগুড়া টেলিকম বিভাগীয় কমিটি এবং সি এন্ড ডবি¬উ বিভাগীয় কমিটির এক যৌথ সভায় এই দাবি জানানো হয়। দুপুরে বনানীস্থ ক্যারিয়ার এন্ড ওয়্যারলেস কম্পাউন্ডে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সি এন্ড ডবি¬উ বিভাগীয় কমিটি বগুড়ার সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মজিদের সভাপতিত্বে এবং নতুন কমিটির সভাপতি আব্দুল হান্নানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সি এন্ড ডবি¬উ বিভাগীয় কমিটির সাবেক সভাপতি আজিজুল বারী জিন্না, নতুন কমিটির সেক্রেটারী রানা মিয়া, সিনিয়র সহ-সভাপতি এস এম শহীদুল ইসলাম, টেলিকম বিভাগীয় কমিটি বগুড়ার সাবেক সেক্রেটারী ময়েজ উদ্দিন, নতুন কমিটির সভাপতি শফিকুল ইসলাম, সেক্রেটারী জহির রায়হান,
সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, ফারুক প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন, বর্তমানে বিটিসিএলে ২০৭২ জন ওয়ার্ক চার্জড কর্মচারি রয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে এসব কর্মীদের রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের দাবি জানানো হলেও কর্তৃপক্ষ কর্ণপাত করছে না। ওয়ার্ক চার্জড ছাড়াও  ১৮শ মাষ্টার রোল কর্মচারি ও বর্তমান সরকারের নিয়োগপ্রাপ্ত সহস্রাধিক ক্যাজু্য়াল কর্মী আছেন। এসব কর্মীরা দিনরাত মাথার ঘাম পায়ে ফেলে গ্রাহকদের সেবা করছেন। কিন্তু কোন সুযোগ সুবিধা পাচ্ছেন না। নেতৃবৃন্দ সিবিএ কর্মীদের তাদের ন্যায্য দাবি আদায়ে কেন্দ্রিয় সেক্রেটারী এস.এম. এ মুকিতের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান। একই সঙ্গে কর্তৃপক্ষের সব অন্যায় কাজ ও অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার ঘোষণা দেন।

0 comments:

Post a Comment