Last update
Loading...

নওগাঁয় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

নওগাঁর পত্নীতলায় স্ত্রী বানু খাতুনকে (২৬) পিটিয়ে হত্যার করা হয়েছে অভিযোগে স্বামী রায়হান আলমকে (৩২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ শনিবার ভোরে জেলার বদলগাছী উপজেলার চাকরাইল গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর রায়হান আলমকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। নিহত বানু খাতুন উপজেলার দক্ষিণ আড়াইল গ্রামের আব্দুস সাত্তারের মেয়ে। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, স্বামী রায়হান আলম গ্রামের একটি মেয়ের সাথে বছরখানেক আগে থেকে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। এ নিয়ে রায়হান আলম এবং বানু খাতুনের মধ্যে প্রায়ই পারিবারিক কলহ লেগে থাকতো। এরই ধারাবাহিকতায় গত বৃহস্পতিবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ শুরু হয়। পরে কলহ থেমে গেলে যে যার মতো ঘুমিয়ে পরেন। শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত প্রতিবেশীরা রায়হান আলমদের বাড়িতে লোকজন দেখতে না পেয়ে বাড়ির মধ্যে এসে বানু খাতুনের লাশ বাড়ির বারান্দায় পড়ে থাকতে দেখেন।
পরে থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে। নিহতের বাবা আব্দুস সাত্তার জানান, পরাকীয়ার জের ধরে রায়হান আলম প্রায়ই তার মেয়েকে মারপিট করতো। বানু খাতুনকে পিটিয়ে এবং শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। রায়হান আলমকে দ্রুত গ্রেফতার করে দ্রুত শাস্তির দাবি জানান। থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোজাহার ইসলাম জানান, নিহতের গলায় একটি কাল দাগ ছাড়াও শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ওই গৃহবধূকে পিটিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পর রায়হান আলম পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদি হয়ে রায়হান আলমকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওসি আরো বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ ভোর রাতে জেলার বদলগাছী উপজেলার চাকরাইল গ্রাম থেকে রায়হানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

0 comments:

Post a Comment