Last update
Loading...

কেমন ছিল ট্রাম্পের ‘যুদ্ধ কক্ষের’ পরিবেশ

ফ্লোরিডার পাম বিচের বিলাসবহুল মার-এ-লাগো রিসোর্ট থেকে সিরিয়ায় মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলা পর্যবেক্ষণ করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার ক্ষমতা গ্রহণের পর শুক্রবার ওই হামলাই ছিল বড় কোনো সামরিক অভিযান। রাতের খাবারের পর উদ্বিগ্ন সহযোগীদের নিয়ে এ অভিযান পর্যবেক্ষণ করেন তিনি। এক টুইটার বার্তায় হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব শন স্পাইসার এ পর্যবেক্ষণ কক্ষকে অস্থায়ী ‘জরুরি পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ কক্ষ’ বলে বর্ণনা করেছেন। এ সম্পর্কিত একটি ছবিও টুইটারে পোস্ট করেছেন তিনি। ছবিতে দেখা যায়, ট্রাম্প ছোট একটি টেবিলের ওপর ভিডিও সরঞ্জাম ও কাগজপত্র নিয়ে অধীর আগ্রহ নিয়ে বসে আছেন। তার পাশেই ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন ও বাণিজ্যমন্ত্রী উইলবার রস। এছাড়া জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা এইচআর ম্যাকমাস্টার, চিফ অব স্টাফ রেইন্স প্রিবাস, বিশেষ উপদেষ্টা জামাতা জেয়ার্ড কুশনার, উপদেষ্টা স্টিভ ব্যানন, স্টিফেন মিলার এবং দলের একমাত্র নারী জাতীয় নিরাপত্তা উপ-উপদেষ্টা দিনা পাওয়েল ও হোয়াইট হাউসের অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তাও ছিলেন। স্পাইসার টুইট বার্তায় জানান, ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স, প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস ও জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ চেয়ারম্যান জেনারেল জোসেফ ডানফোর্ড ওই সময় জরুরি কক্ষে উপস্থিত ছিলেন না। তবে তারা ওয়াশিংটন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পর্যবেক্ষণে যোগ দেন বলে জানান স্পাইসার।
স্পাইসার আরও জানান, ছবিটি তোলা হয়েছিল চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে ট্রাম্পের রাতের খাবারের পর স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত ৯টা ১৫ মিনিটের দিকে। ট্রাম্প ও তার উপদেষ্টাদের এ ছবি সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়কার একটি ছবির সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে। সেই সময় আল কায়েদা প্রধান ওসামা বিন লাদেনের হত্যা অভিযান সরাসরি দেখার জন্য হোয়াইট হাউসের ‘জরুরি পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র’ থেকে হিলারি ক্লিনটন, জো বাইডেন ও অন্যা শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে পর্যবেক্ষণ করেন ওবামা। ছবি দুটি একই দিক (এঙ্গেল) থেকে তোলা হয়েছে। এ সময় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ওয়াশিংটন থেকে মাইক পেন্স, জেমস ম্যাটিস ও অন্য কর্মকর্তারা ট্রাম্পের পর্যবেক্ষক দলকে সিরিয়া হামলার পরিস্থিতি বিস্তারিত জানান। দ্য গার্ডিয়ান বলেছে, ছবির সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে টেবিলে ট্রাম্পের জামাতা জেয়ার্ড কুশনার ও উপদেষ্টা স্টিভ ব্যাননের অবস্থান। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, দরজার দিকে এক কোণে বসেছেন ট্রাম্প। তার পাশেই বাণিজ্যমন্ত্রী উইলবার রস ও অর্থমন্ত্রী স্টিভ মুচিন এবং তার পরেই কুশনার। তবে স্টিভ ব্যানন একেবারেই এক প্রান্তে বসেছেন। আরেকটা বিষয় লক্ষ্যণীয় সেটা হচ্ছে, ট্রাম্পের এ পর্যবেক্ষণ দলে অর্থনীতিবিষয়ক উপদেষ্টাই বেশি উপস্থিত ছিলেন। এর কারণ জিনপিংয়ের সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠক। এ বৈঠকে দুই দেশের বাণিজ্য বেশ গুরুত্ব পেয়েছে। অর্থবিষয়ক উপদেষ্টাদের উপস্থিতিই তার প্রমাণ।

0 comments:

Post a Comment