Last update
Loading...

দোহার এখন মানুষের নিরাপদ আবাসস্থল

ঢাকার দোহার উপজেলার মানুষ এখন নিরাপদ আবাসস্থলে আছেন। কারণ বিগত সময়ে রাজনৈতিক হানাহানি ও অস্থিতিশীল পরিবেশের কারণে মানুষের নিরাপত্তা ছিল না। শনিবার বিকালে দোহারের নাগেরকান্দায় জাতীয় পার্টিতে যোগদান ও ইউনিয়ন নতুন কমিটির পরিচিতি সভায় সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি এ কথা বলেন। রাইপাড়া ইউপি জাতীয় পার্টির সভাপতি গিয়াস উদ্দিনের সভাপতিত্বে সংসদ সদস্য সালমা ইসলাম আরও বলেন, ‘আমাকে আপনারা ভোট দিয়ে সংসদে পাঠিয়েছেন। তাই এ এলাকার উন্নয়নে আমার দায়িত্ব ও কর্তব্য রয়েছে। আমি সেই কাজ করার জন্য প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে যাচ্ছি।’ তিনি আরও বলেন, দোহারের প্রতিটি ইউনিয়নে সমহারে উন্নয়নের কাজ চলমান আছে। অসমাপ্ত কাজও আগামী সময়ের মধ্যে শেষ করব ইনশাআল্লাহ। এছাড়া আইনশৃংখলা আগের তুলনায় অনেক ভালো আছে। কারণ জাতীয় পার্টি চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসের রাজনীতি করে না। আমার দলের নেতাকর্মীরা মানুষের পাশে থেকে কাজ করতে সচেষ্ট আছে।
সাবেক এ প্রতিমন্ত্রী বলেন, রাস্তাঘাটের উন্নয়নের নামে যদি কেউ টাকা পয়সা নেয়ার চেষ্টা করে তাকে আটকে আমাকে ও প্রশাসনকে জানাবেন। এছাড়া এলাকার সবাই ও নেতাকর্মীরা মিলে প্রতিটি উন্নয়ন কাজের তদারকি করবেন। যাতে ঠিকাদার মানুষকে ঠকিয়ে নিম্নমানের কাজ করতে না পারে।  অনুষ্ঠানে পিয়ার আলী মাতবরের নেতৃত্বে শতাধিক নারী-পুরুষ সালমা ইসলামের হাতে ফুল দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করে আগামী নির্বাচনে তাকে জয়ী করার অঙ্গীকার করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন নবাবগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব শরফুদ্দিন আহমেদ শরীফ, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক সুরুজ আলম, জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমেদ, ঢাকা জেলা সহ-সভাপতি ডা. আলাউদ্দিন আল আজাদ, সহ-সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলীম, ইয়াকুব মাতবর, আসাদুজ্জামান চৌধুরী রানা, মশিউর রহমান, হায়দার বেপারি, লোকমান হোসেন, শফিকুল ইসলাম স্বপন, মিলন খান, মানিক হোসেন, আবদুল আলীম টিপু, যুব সংহতির বাবুল হোসেন, জসীম উদ্দিন পান্নু, ছাত্র সমাজের রাজীব খান, জুবায়ের হোসেন প্রমুখ।

0 comments:

Post a Comment