Last update
Loading...

মাশরাফির জন্য চতুর্থদিনের মতো আন্দোলন অব্যাহত

অবসর নয়, টি-২০ ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফি বিন মর্র্তুজাকে বহাল রাখার দাবিতে নড়াইলের লোহাগড়ায় মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন তার ভক্তরা। ‘মাশরাফি ভক্ত ফাউন্ডেশন’ ও ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের আয়োজনে আজ রোববার বেলা ১১টায় নড়াইল-ঢাকা সড়কের লোহাগড়া উপজেলা প্রবেশদ্বারের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসব কর্মসূচীতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, শ্রমজীবী, ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এ সময় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মন্জুরুল করিম মুন, ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের জেলা সভাপতি সৈয়দ খায়রুল আলম, সম্পাদক জাকির হোসেন, ব্যবসায়ী সুখেন্দ্র মজুমদার, আব্দুল হাই প্রমুখ। এদিকে, একই দাবিতে রোববার সকাল ৯টায় লোহাগড়ার কাশিপুর এসি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এড়েন্দা বাজার এলাকায় মানববন্ধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেনসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ। এছাড়া কাশিপুর ফ্রেন্ডস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগেও এড়েন্দা বাজার এলাকায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া এ আন্দোলন আজ রোববার চতুর্থদিনের মতো অব্যাহত রয়েছে। মাশরাফি ভক্তরা বলেন, দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত এ আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। আশা করছি প্রধানমন্ত্রী ভারত সফর শেষে দেশে আসার পর টি-২০ ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফি বিন মর্র্তুজাকে পুনর্বহালের ঘোষণা দিবেন। এদিকে, টি-২০ থেকে মাশরাফির অবসর ঘোষণার পর তার ভক্তরা ফেসবুকে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’কে অধিনায়ক পদে পুনর্বহালের দাবি জানিয়েছেন। এর আগে একই দাবিতে গতকাল শনিবার (৮ এপ্রিল) নড়াইলে শিক্ষার্থী, শ্রমজীবী, যানবাহন চালক, যাত্রী, ব্যবসায়ীসহ পেশাজীবীরা দিনব্যাপী কালোব্যাজ ধারণ কর্মসূচী পালন করেন। এদিকে, গত শুক্রবার বেলা ১১ টায় লোহাগড়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে আধাঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া বৃহস্পতিবার (৬ এপ্রিল) বেলা ১১টায় নড়াইল শহরের রূপগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড, নড়াইল চৌরাস্তা এবং টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ এলাকায় মানববন্ধনসহ সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালিত হয়। প্রসঙ্গত, গত ৪ এপ্রিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-২০ মাঠে গড়ানোর আগেই এই ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। দুই ম্যাচ সিরিজের শেষটিতে ৬ এপ্রিল মাশরাফির নের্তৃত্বে জয়লাভ করেন টাইগাররা। তবে, অবসর ঘোষণার বিষয়টি মাশরাফি ভক্তরা স্বাভাবিক ভাবে মেনে নিতে পারেননি।

0 comments:

Post a Comment