Last update
Loading...

সিরিয়া প্রশ্নে রাশিয়ার ওপর যুক্তরাষ্ট্রের চাপ জোরদার

সিরীয় সরকারের লাগাম টেনে ধরতে যুক্তরাষ্ট্র রোববার রাশিয়াকে চাপ দিয়েছে। এক্ষেত্রে তারা সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, আবারো রাসায়নিক হামলা চালানো হলে ওয়াশিংটন ও মস্কো’র মধ্যে বিদ্যমান সম্পর্ক ‘মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত’ হবে। তারা আরো জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে ক্ষমতায় রেখে কোন শান্তি হতে পারে না। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভের সাথে আলোচনার জন্য মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী রেক্স টিলারসন মঙ্গলবার মস্কো যাচ্ছেন। এর প্রাক্কালে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শীর্ষ উপদেষ্টারা মস্কোর সাথে কূটনৈতিক বিরোধের বিষয় নিয়ে রোববার এক টেলিভিশন টক শো’তে অংশ নেন। গত চার এপ্রিল সন্দেহজনক সারিন গ্যাস হামলার জবাবে দামেস্ক’র সময় শুক্রবার সিরিয়ার একটি বিমান ঘাঁটিতে যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর এটি হবে তাদের মধ্যে প্রথম সরাসরি বৈঠক। বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত সিরিয়ার খান শেখুন শহরে ওই রাসায়নিক হামলায় ৮৭ জন বেসামরিক লোক মারা যান। তেহরানে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়তুল্লাহ আলী খামেনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র একটি ‘কৌশলগত ভুল’ করেছে। তিনি আরো বলেন, ইরান কোন হুমকির মুখে মাঠ ছেড়ে যাবে না। সিরীয় সরকারের ঘনিষ্ঠ সংবাদপত্র আল-ওয়াতার ওয়েবসাইটে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সিরিয়ার বিরুদ্ধে যেকোন ধরনের আগ্রাসনে আমরা কঠোর প্রতিক্রিয়া জানাবো।’

0 comments:

Post a Comment