Last update
Loading...

ধামরাইয়ে ছাত্রীর লাশ উদ্ধার : মাহেন্দ্রর চাপায় নিহত ১

ঢাকার ধামরাইয়ে এক কলেজ ছাত্রীকে রাতে ডেকে নিয়ে চোখ উপড়িয়ে ও গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে হত্যা করে বাড়ির সামনেই ভূট্রা ক্ষেতে লাশ ফেলে রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা। কলেজ ছাত্রীর নাম জাবেদা আক্তার। আজ রবিবার সকালে লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। সে উপজেলার সূতিপাড়া ইউনিয়নের বারপাইখা গ্রামের জয়নাল আবেদীনের মেয়ে।
জানা গেছে, উপজেলার বারপাইখা গ্রামের জয়নাল আবেদীনের মেয়ে মানিকগঞ্জ খন্দকার দেলোয়ার হোসেন কলেজের একাদশ শ্রেণির ১ম বর্ষের ছাত্রী জাবেদা আক্তারকে বাড়ি থেকে সন্ধ্যারাতে মোবাইল ফোনে কে বা কারা ডেকে নিয়ে যায়। রাত গভীর হতে থাকলে বাড়ির লোকজনসহ প্রতিবেশীরা তার সন্ধান পেতে খোঁজতে থাকে। সারা রাত তাকে না পেলেও ভোর বেলায় তার লাশ দেখতে পায় বাড়ির পাশেই ভূট্রা ক্ষেতে। তবে পুলিশ জবেদার ব্যবহৃত মোবাইল সেটটি উদ্ধার করলে ও সিমকার্ড পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে থানার পুলিশ পরিদর্শক( তদন্ত) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, এ হত্যাকান্ডটি পরিকল্পিত ভাবে হয়েছে। তবে এটি প্রেম ঘটিত হতে পারে।
মাহেন্দ্রর চাপায় কৃষক নিহত
ঢাকার ধামরাইয়ে মাটি বহনকারী মাহেন্দ্রর চাকায় পৃষ্ঠ হয়ে আজ রোববার সকালে লালমিয়া নামের এক কৃষক নিহত হয়েছে। তার বাড়ি উপজেলার দ্বীমুখা গ্রামে। জানা গেছে, উপজেলার চৌহাট ইউনিয়নের দ্বীমুখা গ্রামের লালমিয়া(৬৫)নামের এক কৃষক সকালে গরুর জন্য ঘাস কাঁটতে বাড়ির পাশেই কে বি এস নামের এক ইটে ভাটায় যায় । ঘাস কাটার সময় মাটি ভর্তি একটি মাহেন্দ্রর চালক ওই কৃষকের উপর দিয়ে উঠিয়ে দেয়। এ সময় ঘটনাস্থলেই কৃষকের মৃত্যু হয়। ঘটনাস্থলটি পরিদর্শন করেছেন কাওয়ালীপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে পুলিশ পরির্শক গোলাম মোস্তফা চৌধুরী।

0 comments:

Post a Comment