Last update
Loading...

কর্মক্ষেত্রে ফিট থাকবেন যেভাবে

গ্রাম-শহর সব জায়গাতেই মানুষ এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি ব্যস্ত। তবে শহরে ব্যস্ততা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অফিসকেন্দ্রিক। এমনও কর্মজীবী আছেন যাদের দিনের ১০-১২ ঘণ্টা অফিসে বসে কাটাতে হয়। এমনকি তারা বাসা থেকে অফিসে যাতায়াতের সময় গাড়ি ব্যবহার করেন এবং সেখানেও ২-৩ ঘণ্টা বসে কাটান। আমাদের শরীরের কাঠামো হাড়, মাংসপেশি, লিগামেন্ট ইত্যাদি দিয়ে গঠিত। হাত-পা এমনকি মেরুদণ্ডেও রয়েছে অস্থিসন্ধি বা জয়েন্ট। প্রাকৃতিকভাবে আদিকাল থেকেই মানুষ নড়াচড়াপ্রবণ। হাত-পা এবং মেরুদণ্ডের নড়াচড়া আমাদের স্বাভাবিকতাকে প্রকাশ করে।
এই যুগে আমরা কায়িক পরিশ্রম কম করে শুধু অফিসে বসে কাজ করার ফলে স্বাভাবিকতা হারিয়ে ফেলছি। ফলে আদের অস্থিসন্ধি, মাংসপেশি ঠিক থাকছে না। আক্রান্ত হচ্ছি ঘাড়, কোমর, পিঠ বা হাঁটু ব্যথাসহ নানা বাত ব্যথায়। আহার গ্রহণের মাধ্যমে শরীরে ক্যালরি সরবরাহ করছি ঠিকই কিন্তু তা ঠিকমতো ব্যবহার করছি না। ফলে শরীরে মেদ জমছে, হাড়গুলো হারাচ্ছে দৃঢ়তা, মাংসপেশি হয়ে পড়ছে দুর্বল।
করণীয় : যারা একটানা অফিসে বসে কাজ করেন তারা প্রতি ২ ঘণ্টা পরপর চেয়ার-টেবিল থেকে উঠে দাঁড়ান, দু-তিন মিনিট হাঁটুন এবং হালকা স্ট্রেচিং করে নিন। যারা দিনে-রাতে হাঁটার সুযোগ পান না তারা বাসা থেকে কমপক্ষে ২০ মিনিট পথ হেঁটে গিয়ে একটু দূরের স্টপেজ থেকে বাসে উঠুন এবং অফিসের আধা কিলোমিটার আগেই বাস থেকে নেমে হেঁটে যান। দেখবেন দিনের হাঁটা এতেই হয়ে গেছে। যারা ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহারে অভ্যস্ত তারা গাড়ি কম ব্যবহার করুন। খাদ্য তালিকায় প্রচুর সবজি ও ফলমূল যোগ করুন। চর্বি, লাল মাংস ও ফাস্টফুড এড়িয়ে চলুন। পর্যাপ্ত পানি পান করুন। কাজ করুন, ভালো থাকুন ও সুস্থতাও ধরে রাখুন।
বাত ব্যথা ও ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞ
হাসনা হেনা পেইন অ্যান্ড ফিজিওথেরাপি রিসার্চ সেন্টার (এইচপিআরসি), উত্তরা, ঢাকা।
মোবাইল : ০১৮৭২৫৫৫৪৪৪।

0 comments:

Post a Comment