Last update
Loading...

ভারতের সঙ্গে করা চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক জনগণের সামনে প্রকাশের দাবি

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, জনগণকে না জানিয়ে অন্য দেশের সাথে চুক্তি অসৎ উদ্দেশে করা হয়েছে। তবে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠিত হলে দেশবিরোধী সকল চুক্তি গ্রহণযোগ্যতা হারাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। আজ সোমবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি ভারতের সঙ্গে করা সকল চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক জনগণের সামনে প্রকাশ করার দাবি জানিয়ে বলেন, জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠিত হলে দেশবিরোধী সকল চুক্তি গ্রহণযোগ্যতা হারাবে।। নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন হয়। রিজভী বলেন, অন্য দেশের সঙ্গে চুক্তি করা হলে তা জনগণের সামনে প্রকাশ করতে হয়। তা না করে সরকার সংবিধান লংঘন করেছে। তিনি বলেন, জনগণকে না জানিয়ে অন্যদেশের সঙ্গে চুক্তি নিশ্চয়ই অশুভ উদ্দেশ্যেই করা হয়।এই ধরনের চুক্তিতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বকে অবজ্ঞা করা হয়। ভবিষ্যতে দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে মানুষ চিন্তিত।
তিনি বলেন, আমাদের মূলত যা প্রয়োজন ছিলো, তিস্তার পানি, সেই বিষয়ে ভারত একটুও ছাড় দিচ্ছে না। মমতা গতকালও বলেছেন, তিস্তার পানির কোন ভাগ দেয়া হবে না। বিকল্প উপায় দেখিয়ে শুভংকরের ফাকি দিয়েছে। অথচ আমাদের প্রধানমন্ত্রী সবকিছু ভারতকে দিয়ে দিলো! তিস্তার পানি বন্টন নিয়ে বিএনপি প্রয়োজনে আন্তর্জাতিক ফোরাম দাবি জানাবে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, তিস্তার যে প্রবাহ সেখান থেকে আমাদের হিসাব করে দিতে হবে। এক বালতি পানিও কম নিব না। বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন সময় কেন তিস্তা চুক্তি করা হয়নি সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে রিজভী পাল্টা প্রশ্ন করে বলেন, আমরা দাবি জানিয়েছি। হয়নি। কিন্তু শেখ হাসিনা এবং তার দলের তো ভারতের সঙ্গে মাখামাখির সম্পর্ক। তারা কেন পারছে না? এসময় জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠিত হলে দেশবিরোধী সকল চুক্তি গ্রহণযোগ্যতা হারাবে বলে মন্তব্য করেন রিজভী।

0 comments:

Post a Comment