Last update
Loading...

মিশরে জরুরি অবস্থা জারি

মিশরে তিন মাসের জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি। দেশটির কপটিক খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের দুটি গির্জায় রোববার আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৪৫ জন নিহত ও শতাধিক আহতের পর এ ঘোষণা এলো। খবর বিবিসির। মিশরে জরুরি অবস্থা বলবৎ করার ক্ষেত্রে পার্লামেন্টের অনুমোদন নিতে হবে। অবশ্য পার্লামেন্টে সিসির প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে। জরুরি অবস্থায় দেশটির কর্তৃপক্ষ বিনা পরোয়ানায় সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করতে পারবে। পরোয়ানা ছাড়াই সন্দেহজনক বাড়িতে তল্লাশি চালাতে পারবে। জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণার আগে গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোর সুরক্ষার জন্য সারা দেশে সেনা মোতায়েনের আদেশ দেন প্রেসিডেন্ট সিসি।
রোববার দুই গির্জায় হামলার পর জাতীয় প্রতিরক্ষা কাউন্সিলের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রেসিডেন্ট সিসি। এরপর প্রেসিডেন্টের ভবনে ভাষণ দেন তিনি। সিসি সতর্ক করে বলেন, জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াই দীর্ঘ ও বেদনাদায়ক হতে পারে। তিনি বলেন, সব ধরনের আইনগত ও সাংবিধানিক পদক্ষেপের পরই জরুরি অবস্থা বলবৎ হবে। মিশরের উত্তরের দুই শহর টান্তা ও আলেকজান্দ্রিয়ায় চালানো দুই হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। মিশরের খ্রিস্টানরা গতকাল ধর্মীয় দিবস ‘পাম সানডে’ পালন করছিলেন। এ সময় ভয়াবহ ওই হামলার ঘটনা ঘটে।

0 comments:

Post a Comment