Last update
Loading...

শ্রীমঙ্গলে পৃথক অভিযানে চোরাই মালামালসহ আটক ৪

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থানা-পুলিশ কর্তৃক পৃথক অভিযানে চুরি হওয়া একটি সিএনজি, তিনটি মোবাইল ফোন ও একটি ল্যাপটপসহ ৪ চোরকে আটক করেছে থানা পুলিশ। রোববার দিবাগত রাতে হবিগঞ্জের শায়েস্থাগঞ্জ ও মৌলভীবাজার সদর উপজেলা থেকে মালামালসহ তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো-হবিগঞ্জ জেলার লাখাই থানার বামৈ পূর্বগ্রামের আবু মিয়ার পুত্র সিএনজি চোর জুয়েল মিয়া (১৯) এবং ঘর চোর শ্রীমঙ্গল উপজেলার ফুলছড়া চা বাগানের সিদ্দিক মিয়ার পুত্র জসিম উদ্দিন (৩০), কালাপুর ইউনিয়নের গাজীপুরের মুতালেব মিয়ার পুত্র সুমন মিয়া (২৮) ও কালুপুর গ্রামের মৃত মাসিদ মিয়ার পুত্র শাকিল মিয়া (২১)। শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ কেএম নজরুল নয়া দিগন্তকে জানান, তাঁর নেতেৃত্বে এসআই রফিকুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হবিগঞ্জের শায়েস্থাগঞ্জ থানা-পুলিশের সহায়তায় শায়েস্থাগঞ্জ থানার অলিপুর থেকে সিএনজি চালিত অটোরিক্সাসহ জুয়েলকে গ্রেফতার করা হয়।
সিএনজি নং থ-১২-৩৫৫৮। তিনি আরো জানান, গত শনিবার রাতে শহরের হবিগঞ্জ রোডস্থ শাহীবাগ এলাকায় ওস্তার মিয়ার বাসার সামনে সিএনজি রেখে শশুরের বাসায় ঘুমিয়ে পড়ে সিএনজি চালক ভূনবীর এলাকার মৃত ইদ্রিস মিয়ার পুত্র মুজিবুর রহমান নয়ন। বৃহস্পতিবার ভোরে ঘুম থেকে উঠে আর সিএনজিটি না পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানায় বিষয়টি জানালে এটি উদ্ধারে মাঠে নামে পুলিশ। এব্যাপারে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি চুরির মামলা দায়ের করা হয়েছে। যার নং ১৩, তাং ১৩.৪.১৭ ধারা-৩৭৯। অপরদিকে, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে অফিসার ইনচার্জ কেএম নজরুলের নেতৃত্বে এসআই অনিক বড়–য়া সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে জসিম উদ্দিন, সুমন মিয়া এবং শাকিল মিয়াকে মৌলভীবাজার সদর থানার পশ্চিম বড়হাটের মাদ্রাসা রোডের এসআর এন হাউজ থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের হেফাজতে থাকা চুরি হওয়া ৩টি মোবাইল ও ১টি ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়। এর আগে গত ২৫ মার্চ ২০১৭ এসব মালামালসহ বেশ কিছু স্বর্ণের অলংকারাধী চুরি হয় উপজেলার টিকরিয়া এলাকার হরেন্দ্র কুমার শীল এর বাড়ি থেকে। এব্যাপারে হরেন্দ্র কুমার শীল এর পুত্র হিরেন্দ্র কুমার শীল বাদী হয়ে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

0 comments:

Post a Comment