Last update
Loading...

ঈদের দিন কাশ্মিরি নেতারা গৃহবন্দি, বন্ধ ইন্টারনেট

গরু জবাই ও গোশত বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদ করায় কাশ্মিরে হুররিয়াত কনফারেন্স এবং অন্যান্য কাশ্মিরি নেতাদের গৃহবন্দী করেছে পুলিশ। ঈদুল আজহায় আইন-শৃঙ্খলা অক্ষুণ্ন রাখতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে কাশ্মির উপত্যাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আজ শুক্রবার সকাল থেকে আগামীকাল শনিবার পর্যন্ত ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ থাকবে। পুলিশ বলছে, সমস্ত কোম্পানির মোবাইল পরিষেবা এবং ব্রডব্যান্ড পরিষেবা বন্ধ থাকবে। হিন্দি সংবাদ চ্যানেল ‘আজতক’ অবশ্য জানিয়েছে,  শুক্রবার সকাল ৫ টা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত ইন্টারনেট এবং ডাটা সার্ভিসে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।     রাজ্যে হাইকোর্টের পক্ষ থেকে সম্প্রতি গরুর গোশতে কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। ক্ষুব্ধ মানুষজন এ নিয়ে এরইমধ্যে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। ক্ষমতাসীন পিডিপি-বিজেপি জোটের মধ্যে এ ব্যাপারে তীব্র মতবিরোধ সৃষ্টি হয়েছে।   পিডিপি সাফ জানিয়ে দিয়েছে গরুর গোশতের ওপরে কোনো নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা চলবে না। কাশ্মিরের হুররিয়াত নেতারাও গরুর গোশতে নিষেধাজ্ঞা নিয়ে তীব্র আপত্তি এবং প্রতিবাদ জানিয়েছেন। অন্যদিকে, বিজেপি’র  দাবি হাইকোর্টের নির্দেশ কঠোরভাবে পালন করতে হবে। এ নিয়ে রাজ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হওয়ায় বৃহস্পতিবার রাতে  হুররিয়াত নেতা সাইয়্যেদ আলী শাহ গিলানিসহ শাব্বির শাহ, নঈম খান, ইয়াসীন মালিককে গৃহবন্দী করা হয়েছে। এদের বাড়ির বাইরে পুলিশের বড় দল মোতায়েন করা হয়েছে।     এদিকে, রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশক কে রাজেন্দ্র বলেছেন, ‘ঈদুল আযহা উপলক্ষে রাজ্যের কোথাও বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে না। যে ধরণের গুজব ছড়ানো হচ্ছে যে, ঈদ উপলক্ষে বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে, আসলে এ সব কিছুই হবে না।’     তিনি বিশেষ করে যুব সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে পবিত্র ঈদ উৎসব উপলক্ষে শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন। পুলিশের মহানির্দেশক বলেছেন, ঈদ উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা অক্ষুণ্ণ রাখতে সমস্ত মসজিদ এবং ঈদগাহের বাইরে নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছে।- সংবাদসংস্থা

0 comments:

Post a Comment