Last update
Loading...

ঢাকায় কলগার্ল এজেন্সি!

ঢাকায় দিন দিন শক্তিশালী হচ্ছে কলগার্ল বিজনেস নেটওয়ার্ক। প্রশাসনের নাকের ডগা দিয়ে এরা ব্যবসা পরিচালনা করে যাচ্ছে। আর প্রশাসন এই ব্যবসার সাথে পুরোপুরি জড়িত বলেও প্রমাণ পাওয়া গেছে। রাজনীতির সাথে জড়িত প্রভাবশালী কর্তা ব্যক্তিরা এই ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।

ঢাকার কলগার্লদের এই নেটওয়ার্কে কাজ করে বিভিন্ন কলগার্ল এজেন্সি। সবাই মিলে বিশাল অঙ্কের টাকা ভাগ বাটোয়ারা করেন তারা।

কলগার্লের সৌন্দর্য ও স্মার্টনেসের উপর নির্ভর করে ক্লায়েন্টদের জন্য দরদাম নির্ধারন করা হয়। একজন এজেন্টের অধিনে কয়েকশ কলগার্ল থাকে। আবার এই পেশায় অনেক দিন আছেন এমন কলগার্লরা নিজেরাই এজেন্ট হিসেবে কাজ করেন।

ঢাকার ফার্মগেট, মহাখালী,ধানমন্ডি, উত্তরা, গুলশান, বনানী, বারিধারা,বনশ্রী, সেগুনবাগিচা সহ বিভিন্ন এলাকায় ফ্যাট বাসা নিয়ে চলছে এসব অবৈধ কলগার্ল বিজনেস। এছাড়া ফেসবুকে বিভিন্ন পেজে মোবাইল নাম্বার সহ এসব কলগার্লদের নগ্ন ছবি দিয়ে এক প্রকার বিজ্ঞাপনের মত খদ্দেরদের আকৃষ্ট করা হচ্ছে।

খ্যাতিমান নারী মডেল, প্রযোজক, পরিচালক এবং মিডিয়ার অনেক অভিনেত্রীরা এই দেহ ব্যবসায় জড়িত। এছাড়া বিভিন্ন সরকারী বেসরকারি কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের অসংখ্য মেয়েরা নিজেদেরকে দেহ ব্যবসার কাজে সপে দিয়েছে। মিডিয়ায় লোভনীয় কাজের সুযোগ পেতে অনেক তরুণী পরিচালক- প্রযোজকদের বিছানায় যেতেও দ্বিধা বোধ করেন না।

অনেক সময় প্রেমে ব্যর্থ হয়ে কিংবা বন্ধুর প্ররোচনায় মেয়েরা জড়িয়ে পড়ে এই পেশায়। ঢাকায় বর্তমানে ভাইরাসের মত ছড়িয়ে পড়ছে এই ব্যবসা। এভাবে চলতে থাকলে দেশ গঠনের প্রধান হাতিয়ার যুব সমাজ অচিরেই অন্ধকার জগতের অতল গহ্বরে হারিয়ে যাবে। আর আমরা পরিচিত হবো একটি নষ্ট সমাজের বাসিন্দা হিসেবে।

0 comments:

Post a Comment